Home / দেশের খবর / সাভারকে মাদক ও সন্ত্রাস মুক্ত করতে চান কাউন্সিলর প্রার্থী এরশাদুর রহমান

সাভারকে মাদক ও সন্ত্রাস মুক্ত করতে চান কাউন্সিলর প্রার্থী এরশাদুর রহমান

নিজস্ব প্রতিবেদক :
সাভার পৌরসভার ১ নং ওয়ার্ড এলাকার অবহেলিত, নাগরিক সুবিধা ও অধিকার বঞ্চিত বাসিন্দাদের জন্য কাজ করতে চান কাউন্সিলর প্রার্থী এরশাদুর রহমান। আগামী পৌর নির্বাচনে ১ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নির্বাচিত হলে নাগরিক সকল সুবিধা নিশ্চিত ও মাদক-সন্ত্রাস মুক্ত করা করে একটি মডেল ওয়ার্ডে পরিনত করবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।
সারাদেশে অন্যান্য পৌরসভার ন্যায় সাভারেও পৌর মেয়র ও কাউন্সিলরদের মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী ডিসেম্বরে’২০২০ ইং। ইতিমধ্যে পৌর এলাকায় নির্বাচনী আমেজ বইতে শুরু করেছে। বিভিন্ন ওয়ার্ডের সম্ভাব্য কাউন্সিলর প্রার্থীরা আগাম জনসংযোগে ব্যস্ত হয়ে উঠেছেন। প্রার্থীদের অনেকেই ভোটারদের সঙ্গে কুশল বিনিময় ও দলীয় সমর্থন পেতে কাজ শুরু করেছেন। এলক্ষে তারা নিজ নিজ এলাকায় বিভিন্ন সামাজিক এবং দলীয় অনুষ্ঠানে উপস্থিত হচ্ছেন। পাশাপাশি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক ও ইউটিউবে নিজেদের তুলে ধরার চেষ্টা করছেন সম্ভাব্য প্রার্থীরা।
সাভার পৌরসভার ১ নং ওয়ার্ডে একাধিক কাউন্সিলর প্রার্থীদের মধ্যে অন্যতম প্রার্থী হিসেবে রয়েছেন নয়াবাড়ি এলাকার বাসিন্দা পৌর আওয়ামীলীগের ওয়ার্ড সভাপতি এরশাদুর রহমান। কাউন্সিলর প্রার্থী এরশাদুর রহমান এরশাদ

বলেন, সমাজের উন্নয়নমূলক কাজ করে সব সময়ই জনসেবায় সেবায় নিয়োজিত থাকতে চাই। পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডে বিগত দিনে অবহেলিত অবস্থাতেই রয়ে গেছে। এলাকার বাসিন্দারা এখনও নাগরিক সকল সুযোগ সুবিধা হতে বঞ্চিত রয়েছে। আমি ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হিসেবে নির্বাচিত হয়ে নাগরিক সুবিধা নিশ্চিত ও মাদক-সন্ত্রাস মুক্ত করে একটি মডেল ওয়ার্ডে পরিনত করতে চাই। এলাকার দারিদ্রতা ও বেকারত্ব কমাতে কাজ করবো।
তিনি আরো বলেন, আমি আওয়ামী লীগের একজন বঙ্গবন্ধুর আদর্শের একজন সৈনিক। দলের দু:সময় থেকে আজও পর্যন্ত স্থানীয় আওয়ামী লীগকে সুসংগঠিত করে রেখেছি। বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের উন্নয়নে কাজ করে চলেছেন। তারই ধারাবাহিকতায় আগামী পৌর নির্বাচনে ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী হিসেবে আমি দলীয় সমর্থণ প্রত্যাশী।

আপনার মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ।

%d bloggers like this: