Home / অপরাধ / নবজাতককে বিক্রি করেই হাসপাতালের বিল পরিশোধ করেছে এক দম্পতি

নবজাতককে বিক্রি করেই হাসপাতালের বিল পরিশোধ করেছে এক দম্পতি

অনলাইন নিউজ ডেক্স :

মাত্র ১৬ হাজার টাকায় এক নবজাতককে বিক্রি করে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। ক্লিনিকের বিল দিতে না পারায় অর্থাভাবে শিশুটিকে বিক্রি করে দেন শাজাহান মিয়া-আমেনা বেগম দম্পত্তি। ঘটনাটি ঘটেছে গাইবান্ধা জেলায়।

গাইবান্ধা সদর উপজেলার রুপার বাজার এলাকার শোলাগাড়ী গ্রামে বাড়ি এই দম্পত্তির সন্তান বিক্রির ব্যাপারে বাবা শাজাহান মিয়া বলেন, সম্প্রতি তার অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে স্থানীয় মাতৃসদনে নেয়া হলে চিকিৎসকরা জানান যে, পেটে সন্তান উল্টো অবস্থায় আছে, তাই সিজার (অস্ত্রোপচার) করতে হবে।

পরবর্তীতে প্রসব বেদনা উঠলে স্থানীয় পল্লী চিকিৎসক জাকির হোসেনের পরামর্শে গত ১৩ সেপ্টেম্বর তাকে জেলা শহরের যমুনা ক্লিনিকে নিয়ে আসি এবং সেখানেই বাচ্চার জন্ম হয়।

আমেনার অবস্থার উন্নতি হলে বৃহস্পতিবার তাকে ক্লিনিক থেকে রিলিজ করা হয় জানিয়ে তিনি বলেন, টাকা জমা দিতে গিয়ে দেখি ১৬ হাজার টাকা বিল এসেছে। কিন্তু এত টাকা পরিশোধ করার মতো সামর্থ্য নেই। তাই সন্তানকে সাদুল্লাপুরের এক ব্যক্তির কাছে বিক্রি করে দেই। পরে সেই টাকা দিয়ে ক্লিনিকের বিল পরিশোধ করে বাড়ি ফিরে আসি।

‘অভাবে পড়ে নবজাতককে অন্যের হাতে তুলে দিতে বাধ্য হয়েছি।’ তবে কার কাছে বিক্রি করেছেন সে সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করলে কিছু বলতে রাজি হননি শাজাহান মিয়া।

এ বিষয়ে ক্লিনিকের মালিক ফরিদুল হক সোহেল বলেন, নবজাতক বিক্রির ঘটনা ক্লিনিকে হয়নি, এটা বাইরে হয়ে থাকতে পারে। তাই এ ব্যাপারে ক্লিনিকের কিছু করার নেই। শুধু এইটুকু জানি যে, ওই দম্পত্তি রিলিজের সময় ৯ হাজার টাকা জমা দিয়ে গেছেন।

আপনার মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ।

%d bloggers like this: