Home / দেশের খবর / সাভারে তুরাগে মূল পাইপ লাইন ফেটে নির্গত হচ্ছে গ্যাস

সাভারে তুরাগে মূল পাইপ লাইন ফেটে নির্গত হচ্ছে গ্যাস

মো: সাদ্দাম হোসেন , সাভার :

সাভারের আমিন বাজার চানঁপুর এলাকার পাশে তুরাগ নদীর গ্যাস সঞ্চালন লাইনের মূল পাইপ ফেটে অবিরতভাবে গ্যাস নির্গত হচ্ছে। মূল সঞ্চালন লাইনের পাইপ কেটে দেওয়ায় এ ঘটনা ঘটেছে। প্রতিদিনই তুরাগ নদীর মাঝখান দিয়ে যাওয়া গ্যাসের পাইপ লাইন দিয়ে গ্যাস বের হচ্ছে।বিষয়টি নজরে আসার পর সঙ্গে সঙ্গে তা সাভার জোনাল অফিসকে জানানো হয়েছে।

তিতাস গ্যাসের সাভার জোনাল অফিস থেকে এর দূরত্ব মাত্র আধা কিলোমিটার। এ দুর্ঘটনা ঘটলেও এখন পর্যন্ত তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ এটা মেরামতের কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি বলেও অভিযোগ রয়েছে। আড়াই বছর ধরে বুদ বুদ করে উঠছে গ্যাস। তুরাগ নদীর পাইপ কেটে গ্যাস নেওয়ার অভিযোগ উঠছে কয়েকজনের বিরুদ্ধে। এ নিয়ে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। তবে গ্যাস উঠার বিষয়ে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ না করলে হয়তো যেকোনো সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে বলে স্থানীয়রা আশঙ্কা করছেন।

এলাকাবাসী অভিযোগ করে বলেন, পাইপ থেকে চোরাই লাইন স্থাপনের পর বুদ বুদ শব্দ বের হয়। কৌতূহলবশত শ্রমিকরা ম্যাচের কাঠি জ্বালিয়ে পাইপের মুখে দিলে দাউ দাউ করে আগুন জ্বলে ওঠে।

আমিন বাজার ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন , প্রতিবেদক কে বলেন, কতিপয় অসাধু ব্যক্তি মিলে গ্রামের মানুষের কাছ ৪০ লাখ টাকা নিয়ে অবৈধভাবে গ্যাস সংযোগ দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেয়। পাইপ কেটে গ্যাস চুরি করে নেওয়ার ঘটনায় পুলিশ অভিযান চালায়। তিতাস গ্যাস পাইপ স্থাপনের এক পর্যায়ে প্রাকৃতিক গ্যাস বের হওয়া শুরু হয়। গভীর পাইপ দিয়ে গ্যাস বের হওয়া এবং আগুন জ্বলতে থাকায় আমরা আতঙ্কে আছি।

সোমবার সকালে খবর পেয়ে ঢাকার অফিসের তিত্যাস গ্যাস অপারেশন টিমের লিডার মোহাম্মদ, ইলতুৎ হোসেন প্রতিবেদক কে জানান, এ ব্যাপারে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানানো হয়েছে। তারা বিষয়টি অনুসন্ধান করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। গ্যাসের জনদুর্ভোগ কমাতে ও জাতীয় সম্পদ রক্ষায় আমরা দ্রুত কাজ শেষ করবো। গ্যাসের এখানে কোন কিছু জ্বালানো যাবে না। এতে বিস্ফারণও ঘটতে পারে। সাধারণ মানুষকে এ বিষয়ে সাবধান থাকতে হবে।

 



আপনার মতামত লিখুন

আপনার ‘ই-মেইল’ ঠিকানা প্রকাশ করা হবে না, কিন্তু স্টার চিহিৃত ঘরগুলো পূরণ করতেই হবেতেই হবে *

*