Home / জাতীয় / প্রথম ধাপে সর্বনিম্ন ভোট আ.লীগে ১৩ শতাংশ, স্বতন্ত্রে ২৬

প্রথম ধাপে সর্বনিম্ন ভোট আ.লীগে ১৩ শতাংশ, স্বতন্ত্রে ২৬

অনলাইন নিউজ ডেস্ক

পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রথম ধাপের ভোটে তিন ধরনের প্রার্থী চেয়ারম্যান পদে জয়লাভ করেছেন। আওয়ামী লীগ মনোনীত, স্বতন্ত্র ও বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতা- এই তিন ধরনের। এর মধ্যে আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা ৪২ উপজেলায়, স্বতন্ত্র ২৩ উপজেলায় এবং বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ১৫ উপজেলায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিতদের সবাই আওয়ামী লীগের।

বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিতদের ভোটের প্রয়োজন না হলেও ২৩ স্বতন্ত্র ও ৪২ আওয়ামী লীগ প্রার্থীকে ভোটের মাধ্যমে জয়লাভ করতে হয়েছে। যেসব উপজেলায় স্বতন্ত্র প্রার্থী এবং যেগুলোতে আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা জয়লাভ করেছেন, সেগুলোতে ভোটের তারতাম্য রয়েছে।

স্বতন্ত্র প্রার্থীরা জয়লাভ করা উপজেলাগুলোর মধ্যে সর্বনিম্ন ভোট পড়েছে লালমনিরহাট সদরে ২৬ দশমিক শূন্য ৯ শতাংশ। বিপরীতে আওয়ামী লীগের প্রার্থী জয়লাভ করা উপজেলাগুলোর মধ্যে সর্বনিম্ন ভোট পড়েছে রাজশাহীর বাগমারায় ১৩ দশমিক ১৯ শতাংশ।

আওয়ামী লীগ জয়লাভকারী উপজেলাগুলোর মধ্যে সর্বোচ্চ ভোট পড়েছে পঞ্চগড়ের আটোয়ারী উপজেলায় ৭১ দশমিক ১৬ শতাংশ। বিপরীতে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে জয়লাভকারী উপজেলাগুলোর মধ্যে সর্বোচ্চ ভোট পড়েছে কুড়িগ্রামের রাজিবপুরে প্রায় ৬৫ দশমিক ৯৯ শতাংশ।

নির্বাচন কমিশনের তথ্য মতে, প্রথম ধাপের গড় ভোট পড়েছে ৪৩ দশমিক ৩২ শতাংশ। দুই কোটি ছয় লাখ ২৭ হাজার ৮৭ ভোটারের মধ্যে ভোট দিয়েছেন ৪৭ লাখ ৮৭ হাজার ৫১২ জন। এর মধ্যে অবৈধ ভোট পড়েছে এক লাখ চার হাজার ৩৫৪টি।

আওয়ামী লীগ

আওয়ামী লীগ জয়লাভকারী উপজেলাগুলোর মধ্যে পঞ্চগড়ের আটোয়ারীর পর সর্বোচ্চ ভোট পড়েছে ধারাবাহিকভাবে জয়পুরহাটের ক্ষেতলালে ৬৭ দশমিক ২৩ শতাংশ, হবিগঞ্জের লাখাইয়ে ৫৯ দশমিক ১২ শতাংশ। রাজশাহীর বাগমারা বাদে ধারাবাহিকভাবে সর্বনিম্ন ভোট পড়েছে পঞ্চগড় সদরে ২০ দশমিক ৬৩ শতাংশ ও কুড়িগ্রামে সদরে ২৪ দশমিক ৯৪ শতাংশ।

আওয়ামী লীগ জয়লাভকারী উপজেলাগুলোর মধ্যে পঞ্চগড় সদরে ভোট পড়েছে ২০ দশমিক ৬৩ শতাংশ, আটোয়ারীতে ৭১ দশমিক ১৬ শতাংশ ও তেঁতুলিয়ায় ৬২ দশমিক ৭৮ শতাংশ। কুড়িগ্রামে সদরে ২৪ দশমিক ৯৪ শতাংশ, চিলমারীতে ৪৪ দশমিক ৯২ শতাংশ, ভুরুঙ্গামারীতে ৪৩ দশমিক ৩১ শতাংশ, নাগেশ্বরীতে ৩০ দশমিক ৪৯ শতাংশ ও উলিপুরে ২৯ দশমিক ৭২ শতাংশ।

নীলফামারীর ডোমারে ৩৮ দশমিক ৮২ শতাংশ, ডিমলায় ২৮ দশমিক ৮৯ শতাংশ ও সৈয়দপুরে ৩৬ দশমিক ৮৯ শতাংশ। লালমনিরহাটের পাটগ্রামে ৫০ দশমিক ৪১ শতাংশ, হাতীবান্ধায় ৫৩ দশমিক ৭৪ শতাংশ ও কালীগঞ্জে ৫২ দশমিক ৯৮ শতাংশ। সিরাজগঞ্জের চৌহালীতে ৪৫ দশমিক ৫৭ শতাংশ, রায়গঞ্জে ৪৭ দশমিক ৫৩ শতাংশ ও শাহজাদপুরে ৫৮ দশমিক ৬৩ শতাংশ।

জয়পুরহাটের ক্ষেতলালে ৬৭ দশমিক ২৩ শতাংশ ও কালাইয়ে ৫৫ দশমিক শূন্য ৯ শতাংশ। নাটোরের সিংড়ায় ৫০ দশমিক ১২ শতাংশ, বড়াইগ্রামে ৪৭ দশমিক ২৮ শতাংশ ও লালপুরে ৩০ দশমিক ২৮ শতাংশ। রাজশাহীর তানোরে ৫২ দশমিক ৫৫ শতাংশ, পুঠিয়ায় ২৬ দশমিক ৬৯ শতাংশ, দুর্গাপুরে ৪৬ দশমিক ৭৯ শতাংশ, গোদাগাড়ীতে ৩২ দশমিক ৩৩ শতাংশ, চারঘাটে ৪৯ শতাংশ ও বাগমারায় ১৩ দশমিক ১৯ শতাংশ।

সুনামগঞ্জের ছাতকে ৩৬ দশমিক ৫৪ শতাংশ, দোয়ারাবাজারে ৪৫ দশমিক ২৭ শতাংশ, তাহিরপুরে ৫৮ দশমিক ১৬ শতাংশ, সুনামগঞ্জ সদরে ৩৭ দশমিক ৪৯ শতাংশ ও শাল্লায় ৫৬ দশমিক ৭১ শতাংশ। হবিগঞ্জের চুনারঘাটে ৫১ দশমিক ৮২ শতাংশ ও আজমেরীগঞ্জে ৫৮ দশমিক ৭৭ শতাংশ।

হবিগঞ্জের লাখাইয়ে ৫৯ দশমিক ১২ শতাংশ, জামালপুরের ইসলামপুরে ৩৮ দশমিক ৩২ শতাংশ ও বকশীগঞ্জে ৪৬ দশমিক ৪৪ শতাংশ। নেত্রকোনার খালিয়াজুরীতে ৫৭ দশমিক ৫৭ শতাংশ, মোহনগঞ্জে ৫২ দশমিক ৮৩ শতাংশ, মদনে ৪০ দশমিক ১৯ শতাংশ ও কলমাকান্দায় ৩২ দশমিক শূন্য ২ শতাংশ।

স্বতন্ত্র

প্রথম ধাপে স্বতন্ত্র প্রার্থীরা জয়লাভকারী উপজেলাগুলোর মধ্যে কুড়িগ্রামের রাজিবপুর বাদ দিলে সর্বোচ্চ ভোট পড়েছে ধারাবাহিকভাবে হবিগঞ্জের বাহুবলে প্রায় ৫৯, পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জের প্রায় ৫৬ ও বিশ্বভরপুরে প্রায় ৫৬ শতাংশ। লালমনিরহাটের সদর বাদ দিলে সর্বনিম্ন ভোট পড়েছে ধারাবাহিকভাবে জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জে প্রায় ৩ ও সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে প্রায় ৩৬ শতাংশ।

স্বতন্ত্র প্রার্থীরা জয়লাভকারী উপজেলাগুলোর মধ্যে ভোট পড়েছে পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জের ৫৬ দশমিক ১৯ শতাংশ, কুড়িগ্রামের রাজারহাটে ৫১ দশমিক ৮৭ শতাংশ, রৌমারীতে ৪৮ শতাংশ ও রাজিবপুরে ৬৫ দশমিক ৯৯ শতাংশ।

নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে ৫৪ দশমিক ৯৩ শতাংশ, লালমনিরহাট সদরে ২৬ দশমিক শূন্য ৯ শতাংশ, সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে ৩৬ দশমিক ৫২ শতাংশ ও তাড়াশায় ৫৬ দশমিক শূন্য ৫ শতাংশ। জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে ৫০ দশমিক ১৩ শতাংশ, নাটোরের বাগাতিপাড়ায় ৪৬ দশমিক ১৮ শতাংশ ও গুরুদাসপুরে ৫৪ দশমিক ৪৫ শতাংশ।

সুনামগঞ্জ জেলার দক্ষিণ সুনামগঞ্জে ৪৮ দশমিক ১৪ শতাংশ, দিরাইয়ে ৪৭ দশমিক ৩৫ শতাংশ, ধর্মপাশায় ৪৪ দশমিক ১৯ শতাংশ ও বিশ্বভরপুরে ৫৬ দশমিক ৩৯ শতাংশ। হবিগঞ্জের মাধবপুরে ৪৯ দশমিক ৩১ শতাংশ, সদরে ৪৮ দশমিক ৩৩ শতাংশ, নবীগঞ্জে ৩৬ দশমিক ১৮ শতাংশ ও বাহুবলে ৫৯ দশমিক ৪১ দশমিক শূন্য ৬ শতাংশ।

জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জে ৩৫ দশমিক ৯৩ শতাংশ ও বকশীগঞ্জে ৪৬ দশমিক ৪৪ শতাংশ। নেত্রকোনার বারহাট্টায় ৪৭ দশমিক ৪৩ শতাংশ ও দুর্গাপুরে ৪৪ দশমিক ১৯ শতাংশ।

গত ১০ মার্চ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রথম ধাপের ভোট হয়।



আপনার মতামত লিখুন

আপনার ‘ই-মেইল’ ঠিকানা প্রকাশ করা হবে না, কিন্তু স্টার চিহিৃত ঘরগুলো পূরণ করতেই হবেতেই হবে *

*