Home / দেশের খবর / ফসলি জমি নষ্ট করে ক্যানেল খনন, কৃষকের মাথায় হাত

ফসলি জমি নষ্ট করে ক্যানেল খনন, কৃষকের মাথায় হাত

ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:

দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে তিন ফসলি আবাদি জমিতে পানি নিস্কাশনের ক্যানেল খনন করায়, মাথায় হাত পড়েছে ওই এলাকার কৃষকের। প্রতিকার চেয়ে কর্তা ব্যাক্তিদের দ্বরে দ্বরে ঘুরছে জমি মালিকেরা।

ঘটনাটি ঘটেছে ফুলবাড়ী উপজেলার খয়েরবাড়ী ইউনিয়নের মহদিপুর, মহেষপুর এলাকায়। এতে ক্ষতিগ্রস্থ হয়ে পড়েছে মহদিপুর, মহেষপুর, অ¤্রবাড়ী ও লালপুর গ্রামের কৃষকেরা।

ভুক্তভোগী কৃষকেরা বলেন, পানি নিস্কাশনের শেষাংশ (ভাটি এলাকা) দৌলতপুর ইউনিয়নের বারাইপাড়া, গড়পিংলাই মৌজায় পানি নিস্কাশনের রাস্তা বন্ধ করে পুকুর খনন ও বাধ নির্মান করায় বর্ষাকালের পানি নিস্কাশনে বাধা সৃষ্টি করেছে।

এই কারনে প্রতি বছর বর্ষাকালে পানিতে ডুবে যাচ্ছে খয়েরবাড়ী ইউনিয়নের উত্তর লক্ষিপুর, মহদিপুর, মহেষপুর এলাকার ফসল ও বাড়ী-ঘর। অথচ পানি নিস্কাশনের বাধা হয়ে যাওয়া গড়পিংলাই ও বারাইপাড়া এলাকার বাঁধ ও পুকুর অপসারণ না করে, নারায়পুর, লালপুর ও মহেষপুর এলাকায় তিন ফসলি জমির উপর পানি নিস্কাশনের ক্যানেল খনন করছে পানি উন্নায়ন বোর্ড।

কৃষকেরা বলছেন, পানি উন্নায়ন বোর্ডের ক্যানেল খননের কারনে তাদের মালিকানা তিন ফসলি জমি ক্যানেলের গর্ভে চলে যাচ্ছে, অথচ পানি উন্নায়ন বোর্ড তাদের জমির মূল্য বা ক্ষতিপুরন কিছুই দিচ্ছেনা, এতেকরে ফসলি জমি হারিয়ে তাদের মাথায় হাত পড়েছে।

ক্ষতিগ্রস্থ কৃষক মঞ্জুরুল ইসলাম বলেন, এই ক্যানেল খননের কারনে তার এক বিঘা জমি ক্যানেল গর্ভে চলে যাবে, অথচ পানি উন্নায়ন বোর্ড কোন প্রকার ক্ষতিপুরন তাকে প্রদান করেনি। একই কথা বলেন, ক্ষতিগ্রস্থ কৃষক প্রফুল্য চন্দ্র সরকার, রবীউল ইসলামসহ অনেকে।

কৃষক মঞ্জুরুল ইসলাম বলেন, তারা তাদের ক্ষতিপুরনের দাবীতে গত ২৬ ফেব্রুয়ারী উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট এবং গত ৪ মার্চ পানি উন্নায়ন বোর্ড বরাবর পৃথক দুটি লিখিত আবেদন করেও, এখন পর্যন্ত কোন প্রকার প্রতিকার পাননি তারা। এজন্য তারা এখন তাদের জমির ক্ষতিপুরনের দাবীতে আন্দোলনে নামার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানিয়েছেন।

এই বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুস সালাম চৌধুরীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, প্রকল্পটি যেহেতু পানি উন্নায় বোডের এই কারনে তারায় বিষয়টি দেখভাল করবেন, তিনি বলেন কৃষকদের দেয়া আবেদন প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য যথাযথ কতৃপক্ষের মাধ্যেমে পানি উন্নায় বোডে প্রেরন করা হয়েছে।

এই বিষয়ে পানি উন্নায় বোড়ের সাথে যোগাযোগ করা হলে সহকারী প্রকৌশলী বলেন, বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।



আপনার মতামত লিখুন

আপনার ‘ই-মেইল’ ঠিকানা প্রকাশ করা হবে না, কিন্তু স্টার চিহিৃত ঘরগুলো পূরণ করতেই হবেতেই হবে *

*